Monday, February 10th, 2020




সুইস ঘড়ির বিক্রি কমেছে

সুইস ঘড়ি ইন্ডাস্ট্রির মোট বিক্রিকে ছাড়িয়ে গেছে অ্যাপল ওয়াচ।বাজার বিশ্লেষক ফার্ম স্ট্র্যাটেজি অ্যানালিটিক্সের অনুমান, গত বছর সারা বিশ্বে অ্যাপল ৩০ দশমিক ৭ মিলিয়ন ইউনিট বিক্রি করে। সুইস ঘড়ির ইন্ডাস্ট্রি বিক্রি করে ২১ দশমিক ১ মিলিয়ন ঘড়ি।বিলাস বহুল সুইস ঘড়ির অধিকাংশ ক্রেতা বয়স্ক আর অ্যাপল ওয়াচ ক্রেতারা বয়সে তরুণ। কারণ ফ্যাশন অনুষঙ্গ অ্যাপল ওয়াচ স্বাস্থ্য সমস্যা সম্পর্কেও ব্যবহারকারীকে সতর্ক করে। হৃৎস্পন্দন অনিয়মিত কিনা তা অ্যাপল ওয়াচই জানিয়ে দেয়। ইমার্জেন্সি কল করারও সুবিধা রয়েছে অ্যাপল ওয়াচে।

তাই প্রচলিত ঘড়ির নির্মাতা কোম্পানি সোয়াচ ও টিসোট তাই অ্যাপলের সঙ্গে পরে উঠছে না। বাজারে টিকে থাকতে সুইজারল্যান্ডের অনেক ঘড়ি নির্মাতা কোম্পানি এখন স্মার্টওয়াচ তৈরির দিকে ঝুঁকছে। গত প্রান্তিকে অ্যাপল ওয়াচ ও এয়ারপডের মাধ্যমে অ্যাপলের বিক্রি হয় ১০ বিলিয়ন ডলার। ২০১৮ সালের একই সময়ের চেয়ে তাদের বিক্রি বৃদ্ধি পায় ২৭ শতাংশ।সর্বপ্রথম ২০১৪ সালে অ্যাপলওয়াচ উন্মোচন করে অ্যাপল। এরপর থেকে ধীরে ধীরে সুইস ঘড়ির বিক্রিতে ভাগ বসায় অ্যাপল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

Advertisement