Friday, June 28th, 2019




জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষকের সম্মাননা পেলেন জমিলা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক পলাশ কান্তি মজুমদার

জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৯ খ্রি. এ দ্বিতীয় বারেরমত জাতীয় পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষক (কারিগরি) নির্বাচিত হয়েছেন কুমিল্লা জেলাধীন সদর দক্ষিণ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী চাঁদপুর জনতা হাই স্কুল এন্ড কলেজের কারিগরি বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক জনাব পলাশ কান্তি মজুমদার। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০১৯ উপলক্ষ্যে ৩৫টি ইভেন্টে সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ ঢাকায় এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় গত ১৯ ও ২০ জুন।

গত বুধবার ২৬ জুন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে সেগুনবাগিচার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সনদ ও পুরস্কার প্রদান করেন।
পলাশ কান্তি মজুমদার কারিগরি বিভাগে সিনিয়র ইনস্ট্রাক্টর হিসেবে কর্মরত আছেন। উল্লেখ্য যে, তিনি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৭ এ জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক (কারিগরি) নির্বাচিত হয়েছিলেন।

তিনি চট্টগ্রাম জেলাধীন মিরসরাই উপজেলার ০৩ নং জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ০২ নং ওয়ার্ডের গোবিন্দপুর নামক গ্রামের গৌরব উজ্জ্বল এই কৃতি সন্তান ১৯৭৮ সালের এক জানুয়ারি এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন। তিনি শিক্ষক পিতা জনাব সুনীল চন্দ্র মজুমদার ও মেধাবী গৃহিনী মাতা গীতা রানী মজুমদারের জৈষ্ঠ্য সন্তান।

তিনি ১৯৮১ সালে শিক্ষা জীবন শুরু করে ১৯৮৫ সালে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত তাজপুর অলি আহম্মদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অধ্যায়ন করেন। ১৯৮৬ সালে ছয় মাস সীতাকুন্ড রেলওয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণির পাঠ গ্রহন করেন। পরবর্তীতে তিনি জোরারগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে ১৯৮৭ সালে পঞ্চম শ্রেণি পাশ করেন। ১৯৮৮ সালে জোরারগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়ে ১৯৯৩ সালে বিজ্ঞান বিভাগে এস.এস.সি ১৯৯৭ সালে জোরারগঞ্জ সরকারি টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, চট্টগ্রাম হতে ডিপ্লোমা ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী লাভ করেন। ২০১২ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ হতে ১ম শ্রেণিতে বি.এস.এস (প্রায়ভেট) ডিগ্রী লাভ করেন। ২০১৪ সালে অতিশ দিপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হতে ১ম শ্রেণি পেয়ে বি.এস.সি ইন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী লাভ করেন। ২০১৪ সালের প্রাইভেট পরীক্ষার্থী হিসেবে ২০১৭ সালে ১ম শ্রেণিতে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে মাস্টার্স ডিগ্রী লাভ করেন এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ হতে ১ম শ্রেণি পেয়ে এম.এস.সি (এম.সি.এ) ডিগ্রী লাভ করেন। ২০১৮ সালে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কুমিল্লা সরকারি টির্চাস ট্রেনিং কলেজ হতে ১ম শ্রেণি পেয়ে বি.এড ডিগ্রী লাভ করেন এবং বর্তমানে এম.এড ফাইনাল সেমিস্টারে অধ্যায়নরত।

তিনি ১৯৯৭ হতে ২০০০ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন প্রাইভেট টেক্সটাইল ইন্ডাষ্ট্রিতে চাকুরি করেন ২০০১ সালে আদর্শ শিক্ষক পিতা সুনীল চন্দ্র মজুমদারের সুযোগ্য সন্তান পলাশ কান্তি মজুমদার শিক্ষকতা পেশায় প্রথমে চাঁদপুর জেলাধীন মতলব (উত্তর) উপজেলার জমিলা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ের কারিগরি বিভাগে যোগদান করে ২০০৮ সাল পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন। তিনি ২০০৯ সালে শিক্ষানগরী কুমিল্লা জেলাধীন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ চাঁদপুর জনতা হাই স্কুল এন্ড কলেজ এর কারিগরি বিভাগে যোগাদান করে অদ্যবদি নিয়োজিত আছেন এবং পাশাপাশি কলেজ শাখার আইসিটি বিষয়ে প্রভাষকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তাছাড়া তিনি ২০১৬ সাল হতে MSB Institute of Fashion Design & Technology, Cumilla-তে খন্ডকালীন প্রভাষক হিসেবে আইসিটি ও টেক্সটাইল বিষয়ে পাঠদান করে আসছেন। এছাড়া তিনি যুব উন্নয়ন অদিদপ্তরের বিভিন্ন কোর্সের প্রশিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছেন এবং শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা ও আইসিটি বিষয়ক দক্ষতা বৃদ্ধিতে তিনি নিরলস ভাবে ইন-হাউজ প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়াও এটুআই এর বিভিন্ন প্রোগ্রামে নিজে ও শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করে দক্ষতা বৃদ্ধিতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ গ্রহনের মাধ্যমে নিজের দক্ষতা বৃদ্ধিতে সচেষ্ট রয়েছেন। তিনি ২০১৪-২০১৫ সালে দুই মাস ব্যাপী ভারতের চেন্নাইতে Development Technical Education To Meet The Global Needs বিষয়ের উপর ILO ও ভারতের স্কলারশীল নিয়ে আইটেক ট্রেনিং গ্রহন করেন। এছাড়া তিনি দেশে Digital Content Development Training, Advanced ICT Course Training, Trouble Shooting Training, National Skills Development Policy Training, Professional Skill Enhancement & Institutional Leadership Development Training সহ অস্যংখ প্রশিক্ষণ গ্রহন করেন এবং তিনি বিভিন্ন সময়ে জেলা ও উপজেলা পর্যয়ে প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

মহান পেশা শিক্ষকতার পাশাপাশি তিনি কুমিল্লায় রোটারি ক্লাব অব আড়ং কুমিল্লাতে জয়েন্ট সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করেন। ইনষ্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স (আইডিইবি) কুমিল্লা জেলা শাখায় বর্তমানে ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক এবং কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলায় সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বর্তমানে কুমিল্লা জেলা ICT4E কমিটির গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এবং কুমিল্লা দক্ষিণ উপজেলা কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সংগঠনের উপজেলা পর্যায়ে জয়েন্ট সেক্রেটারির দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

তিনি ব্যক্তিগত জীবনে ২০০২ সালের ২০ জুন কুমিল্লা সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে কর্মরত সিনিয়র স্টাফ নার্স জনাব সেবিকা রানী পালের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁর পরিবারের সকল সদস্য উচ্চ শিক্ষিত ও স্ব স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত। তিনি বর্তমানে দুই পুত্র সন্তানের জনক। তাঁর বড় ছেলে স্পর্শ মজুমদার কুমিল্লা জিলা স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে অধ্যায়নরত। ছোট ছেলে স্পন্দন মজুমদার আগামী বছর স্কুল জীবনে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে। ব্যক্তিগত জীবনে একজন কর্মঠ, পরিশ্রমী, বিনয়ী ও ভদ্র পলাশ কান্তি মজুমদার তাঁর প্রতি অর্পিত দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালনে সর্বদা সচেতন ও দায়িত্ববান। এই কারণেই তিনি প্রতিষ্ঠানের একজন জনপ্রিয় শিক্ষক হিসেবে সুনাম ও সুখ্যাতি অর্জন করেছেন। তিনি তার সকল শিক্ষার্থীদের কাছে সমান জনপ্রিয়।

তাঁর গৌরবময় কর্ম জীবনে মাক্রোসফট এডুকেশনে MIE Expert হিসেবে তালিকাভূক্ত হয়েছেন এবং ব্রিটিশ কাউন্সিল কানেক্টিং স্কুল এ ডিসেম্ব ২০১৮ তে ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ফুল অ্যাওয়ার্ড (ISA) লাভ করেন। শিক্ষক বাতায়নের জাতীয় ভাবে সপ্তাহের সেরা কন্টেন্ট নির্মাতার স্বীকৃতি ভাল করেন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৭ সালে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক (কারিগরি) এবং জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৯ সালেও জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক (কারিগরি) এর গৌরব অর্জন করায় চাঁদপুর জনতা হাই স্কুল এন্ড কলেজ এর সম্মানিত অধ্যক্ষ জনাব মোঃ আবু ইসহাক মহোদয় ও সম্মানিত শিক্ষকমন্ডলী, পরিচালনা কমিটির সম্মানিত সভাপতি জনাব মোঃ মনিরুল হক মৈশান ও সম্মানিত সদস্য বৃন্দ এবং সকল বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। তাঁর কৃতিত্বের স্বীকৃতি স্বরূপ অসংখ্য স্থানীয় ও জাতীয় পুস্কার লাভ করেছেন। তিনি সকলের নিকট আশির্বাদ/ দোয়া প্রার্থী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ

Advertisement