Wednesday, January 13th, 2021




বুড়িগঙ্গা দূষণরোধে রায় বাস্তবায়নের পদক্ষেপ জানাতে ওয়াসাকে হাইকোর্টের নির্দেশ

বুড়িগঙ্গা নদীর পানি দূষণরোধে আদালতের রায় বাস্তবায়নে সুনির্দিস্ট পদক্ষেপ বা পরিকল্পনা প্রণয়ন করে তা আগামী ২১ জানুয়ারির মধ্যে দাখিল করতে ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালককে (এমডি) নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন। বুড়িগঙ্গা নদী দূষণরোধে পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা এক রিট মামলায় এ আদেশ দেন হাইকোর্ট। রিট আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ। ওয়াসার পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট উম্মে সালমা।

এইচআরপিবি’র করা রিট মামলায় হাইকোর্ট ২০১১ সালে এক রায়ে বুড়িগঙ্গা নদীর তীর থেকে সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ দেন। এছাড়া নদীর পানি যাতে দূষিত না হয় সেজন্য সব ধরনের বর্জ্য ফেলা বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু এখনও কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠান ও ওয়াসার সুয়ারেজ লাইনের মাধ্যমে তরল বর্জ্য নদীতে ফেলা হচ্ছে। যা নদীর পানিকে দূষিত করছে। বিষয়টি এইচআরপিবি’র পক্ষ থেকে আদালতের নজরে আনা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে গতবছর ৪ মার্চ হাইকোর্টে সশরীরে হাজির হয়ে ওয়াসার এমডি তাকসিম এম খান রায় বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দেন। পরবর্তিতে গতবছর ১৮ আগস্ট ও ৭ সেপ্টেম্বর ওয়াসা দুটি প্রতিবেদন দাখিল করে। কিন্তু আদালত ওই প্রতিবেদন গ্রহণ না করে রায় বাস্তবায়নের জন্য ওয়াসাকে সময় দেন। এ অবস্থায় ওয়াসার এমডির পক্ষ থেকে গতবছর ১৪ সেপ্টেম্বর যে প্রতিবেদন দাখিল করা হয় তাতে আদালত অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ