Wednesday, January 13th, 2021




বাংলাদেশের বাতাস দূষিত, তাই ফ্রান্সে থাকার অনুমতি পেলেন অভিবাসী বাঙালি

বাংলাদেশের বাতাস ‘বিপজ্জনক মাত্রায়’ দূষিত, তাই দেশে ফিরলে অকাল মৃত্যু হতে পারে এমন যুক্তি দিয়ে ফ্রান্সে থাকার অনুমতি পেলেন এক বাঙালি অভিবাসী।

ফ্রান্সের বোর্দোর একটি আপিল আদালত এ সংক্রান্ত শুনানি শেষে ৪০ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি নাগরিককে সেখানে থাকার অনুমতি দিয়েছেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।
ওই ব্যক্তির আইনজীবী লুডোভিচ রিভিয়ার আদালতকে জানান, তার মক্কেলের অ্যাজমা রোগ আছে। তিনি বাংলাদেশে গেলে অকাল মৃত্যুর শঙ্কায় পড়তে পারেন।

আইনজীবী বলেছেন, ‘আমার জানা মতে ফ্রান্সের কোনো আদালত এই প্রথম এমন রায় দিলেন।’

‘সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বিপজ্জনক দূষণের কারণে আমার ক্লায়েন্টের জীবন হুমকিতে পড়বে।’

বাংলাদেশের দূষিত বাতাস নিয়ে আলোচনা বেশ পুরোনো। গত বছর বৈশ্বিক র‌্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান ছিল ১৭৯তম। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মানের থেকেও প্রায় ৬ গুণ খারাপ দেশের কিছু অঞ্চলের বাতাস।

আদালতের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে, ওই অভিবাসী যে ওষুধ গ্রহণ করেন তা বাংলাদেশে পাওয়া যায় না। তাছাড়া হাসপাতালে তার যে ধরনের ভেন্টিলেশন যন্ত্রপাতি দরকার পড়ে, ঘুমানোর জন্য বাংলাদেশের হাসপাতালে তা কেবলমাত্র রাতে দেওয়া সম্ভব।

টেলিগ্রাফ জানিয়েছে, ওই অভিবাসীর বাবা ৫৪ বছর বয়সে অ্যাজমা অ্যাটাকে মারা যান।

ভুক্তভোগী অভিবাসী ২০১১ সালে ফ্রান্সে যান। সেখানে ওয়েটারের কাজ করেন। ২০১৫ সালে অস্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ