Sunday, August 30th, 2020




হোসেনী দালান চত্বরেই হচ্ছে ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া মিছিল

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে আজ রোববার সকাল থেকেই ভক্তদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের হোসেনী দালান চত্বর। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে এবার শিয়া সম্প্রদায়ের তাজিয়া মিছিল সড়কে বের হবে না। হোসেনী দালান চত্বরেই হচ্ছে ঐতিহ্যবাহী এই মিছিল।

সকাল ৯টার দিকে নাজিমুদ্দিন রোড এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, হোসেনী দালান যে সড়কে সে সড়কে প্রবেশের মুখে ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে। সড়কে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা টহল দিচ্ছেন। হোসেনী দালাল চত্বরে প্রবেশের জন্য মানুষের দীর্ঘলাইন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা একেকজনকে পরীক্ষা করে আর্চওয়ের মধ্য দিয়ে প্রবেশ করাচ্ছিলেন।

হোসেনী দালাল চত্বরের ভেতরেও অবস্থান নিয়েছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ভেতরে গিয়ে দেখা গেছে, কালো কাবুলি ও পাঞ্জাবি পরা তরুণরা ঘোরাফেরা করছেন। তরুণীদের গায়ে ছিল কাল সালোয়ার কামিজ। হাতে আলাম নিয়ে তারা মিছিলের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। মিছিলে অংশ নিতে এসেছেন বিপুল সংখ্যক নারী। এসেছে শিশুরাও।

ইমামবাড়ার ভেতরে সাজানো হচ্ছিল তাজিয়া। অনেকেই শ্রদ্ধাভরে ছুঁয়ে দিচ্ছিলেন আলামসহ অন্যান্য উপকরণ। তবে কোনো উপকরণ স্পর্শ না করার নিষেধাজ্ঞা সম্বলিত ফেস্টুন দেখা গেছে বিভিন্ন জায়গায়।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে আজ সারা দেশে সরকারি ছুটি। এ উপলক্ষে বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকা বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশ করবে। বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ বিভিন্ন বেসরকারি রেডিও এবং স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল আশুরার তাৎপর্য তুলে ধরে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা সম্প্রচার করছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পবিত্র আশুরার দিনে রাজধানীতে সব ধরনের তাজিয়া, শোক ও পাইক মিছিল নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকেও বন্দরনগরে তাজিয়া মিছিল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ডিএমপির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বর্তমান করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে সব ধরনের তাজিয়া, শোক ও পাইক মিছিল নিষিদ্ধ। তবে ধর্মপ্রাণ নগরবাসী স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইমামবাড়ায় ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করতে পারবে। অনুষ্ঠানস্থলে দা, ছোরা, কাঁচি, বর্শা, বল্লম, তরবারি ও লাঠি বহন এবং আতশবাজি ও পটকা ফোটানো সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ থাকবে।

হিজরি ৬১ সনের (৬৮০ খ্রিস্টাব্দ) ১০ মহররম ইরাকের কুফা নগরের অদূরে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে সঙ্গী-সাথিসহ নির্মমভাবে শহীদ হন মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র ইমাম হুসাইন (রা.)। অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গিয়ে ইমাম হুসাইন (রা.)-এর আত্মত্যাগের এই ঘটনা ইসলামের ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে আছে।

শিয়া সম্প্রদায় আশুরার দিনটিকে বিশেষভাবে পালন করে থাকে। আশুরার দিনে পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের হোসেনী দালান থেকে বের হওয়া শিয়াদের তাজিয়া মিছিল ঐতিহ্যবাহী। এ ছাড়াও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শিয়ারা তাজিয়া মিছিল বের করে। তবে এবার করোনার কারণে সড়কে বের হচ্ছে না তাজিয়া মিছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ