Monday, May 18th, 2020




রিয়েলমি সি-থ্রি মাত্র ১০,৯৯০ টাকায়

স্মার্টফোনের প্রতিযোগিতামূলক বাজারে বিভিন্ন দামে একের পর এক ট্রেন্ড সেটিং এবং শক্তিশালী ফোন নিয়ে আসছে রিয়েলমি। লেটেস্ট ফিচার এবং চোখ ধাঁধানো সব ডিজাইনের স্মার্টফোন খুব সহজেই বিশ্বব্যাপী প্রযুক্তিপ্রেমী তরুণ প্রজন্মের মন জয় করে নিচ্ছে। ‘ডেয়ার টু লিপ’ স্পিরিটে উদ্বুদ্ধ ব্র্যান্ডটি সম্প্রতি বাংলাদেশের বাজারে সি সিরিজের সর্বশেষ স্মার্টফোন রিয়েলমি সি-থ্রি লঞ্চ করেছে। এবং এ রকম দামে এমন একটি ফোন ভাবাই যায় না।

 

প্রাণবন্ত ছবির জন্য এআই ট্রিপল ক্যামেরা
রিয়েলমি সি-থ্রির পেছনে এআই ট্রিপল ক্যামেরার সেটাপে রয়েছে ৪ গুণ জুমের ক্ষমতাসম্পন্ন ১২ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা। এর সঙ্গে আছে ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর, যা সাবজেক্ট থেকে ব্যাকগ্রাউন্ডের দূরত্ব নিজে থেকে যাচাই করে পোর্ট্রেট তোলার সময় দেবে চমৎকার বোকেহ ইফেক্ট। এ ছাড়া রয়েছে একটি ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। প্রধান ক্যামেরায় ১০৮০ পিক্সেলে ভিডিও করার পাশাপাশি ১২০ ফ্রেমরেট স্লো-মসনে ভিডিও করা যাবে। ক্যামেরায় ক্রোমকাস্টের অনন্য সংযোজনে প্রতিটি ছবিতে থাকবে আরও বেশি আলো এবং ডিটেইল। প্রো মোডের পাশাপাশি ক্যামেরায় এআইএইচডিআর, টাইম-ল্যাপ্স ও প্যানোরামার সুবিধাও আছে। ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরায় পানোসেলফি এবং এআই বিউটিফিকেসশনের সাহায্য প্রাণবন্ত সেলফি তুলতে সাহায্য করবে।


স্মুথ গেমিং অভিজ্ঞতা
রিয়েলমি সি-থ্রিতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি-সেভেন্টি চিপসেট, যেটি ১২ ন্যানোমিটার। অক্টা-কোর প্রসেসরের ব্যবহারে এইচডি সেটিংসেও বিরতিহীনভাবে সহজেই পাবজি খেলা যাবে। বাংলাদেশে বাজারকৃত স্মার্টফোনগুলোর ভেতর সি-থ্রিতেই প্রথম এই চিপসেট ব্যবহৃত হয়েছে।

স্মার্টফোনগুলোতে দ্রুততার সঙ্গে সব কাজ সম্পাদনের জন্য উন্নতমানের ও শক্তিশালী চিপ ব্যবহার করা হচ্ছে। এবং নতুন সব আপডেটের ফলে অ্যাপগুলো বড় হচ্ছে। যার ফলে ব্যাটারির চার্জ খুব দ্রুত শেষ হচ্ছে। সারা দিনের বিনোদন, গেমিং এবং সব ধরনের ব্যবহারের জন্য রিয়েলমি সি-থ্রিতে রয়েছে ৫ হাজার মিলি অ্যাম্পিয়ারের বিশাল ব্যাটারি। সি-থ্রি স্মার্টফোনে ফাস্ট চার্জিংয়ের পাশাপাশি রিভার্স চার্জিংয়ের মাধ্যমে অন্য ফোনও চার্জ দেওয়া যাবে।

সি সিরিজের স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় এ ব্যাটারির সম্পূর্ণরূপে চার্জে প্রায় ৪০ ঘণ্টার কল টাইম, প্রায় ২০ ঘণ্টার নন-স্টপ ইউটিউব দেখা বা করার সময় ১১ ঘণ্টার বেশি পাবজি খেলা যাবে। শক্তিশালী প্রসেসর, বিশাল ব্যাটারির পাশাপাশি এ ফোনে থাকা ৩ গিগাবাইট র‍্যাম ও অপটিমাইজেশন দেবে চমৎকার স্মুথ ও দীর্ঘ বিনোদন বা গেমিং সেশন। ৩২ গিগাবাইটের স্টোরেজে জায়গা ফুরিয়ে যাওয়া নিয়েও ভাবতে হবে না।

রিয়েলমি ইউআই-ডার্ক মোডে চোখের ওপর চাপ কমবে
রিয়েলমি সি-থ্রিতে আছে ৬.৫ ইঞ্চি এইচডি প্লাস মিনি ডিউড্রপ ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে গরিলা গ্লাস থ্রি দিয়ে সুরক্ষিত, যা পূর্ববর্তী গরিলা গ্লাস টুর থেকে প্রায় তিন গুণ শক্তিশালী। এই স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড টেন-ভিত্তিক রিয়েলমি উইআই। অন্ধকারেও দীর্ঘক্ষণ ফোন ব্যবহারে যেন চোখের ওপর তেমন চাপ না পড়ে, সে জন্য নতুন উইআইতে সংযোজিত হয়েছে ডার্ক মোড। ডিভাইসটিতে আছে আই প্রোটেকশন মোড, যার ব্যবহারে ডিভাইস থেকে রেডিয়েশন হ্রাস করে চোখের ওপর চাপ কমায়।

স্মার্টফোনটিতে ফেস ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট আনলকের সুবিধাও রয়েছে। আইস গ্লেসিয়ার ও হট লাভার অনুপ্রেরণায় ফ্রোজেন ব্লু ও ব্লেজিং রেড—এ দুই রঙে পাওয়া যাচ্ছে রিয়েলমি সি-থ্রি। এই দামের মধ্যে এত সব ফিচার ও সুযোগ-সুবিধা নিয়ে স্মার্টফোন কৌতূহলীদের মধ্যে এরই মধ্যে রিয়েলমি সি-থ্রি ব্যাপক সারা ফেলেছে।

সি সিরিজের পূর্ববর্তী ফোন রিয়েলমি সি-টু ভারতে ২০১৯ সালে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে একটি। এবং বাংলাদেশে লঞ্চ করার পর দেশের বেশ কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স সাইটে তাৎক্ষণিকভাবে সফলতা লাভ করে। দারুণ সব সুযোগ-সুবিধা নিয়ে রিয়েলমি সি-থ্রিও একই দিকে এগোচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ