Saturday, March 21st, 2020




পেঁয়াজের আড়তে অভিযান, ২২ লাখ টাকা জরিমানা

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে পেঁয়াজের আড়তে অভিযান চালিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ১৪ প্রতিষ্ঠানকে ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

করোনা পরিস্থিতির সুযোগে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পেঁয়াজ ও আলু মজুত করে বেশি দামে বিক্রি করায় আজ শনিবার (২১ মার্চ) সকাল ৬টায় এ অভিযান শুরু হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।

সারোয়ার আলম বলেন, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী পেঁয়াজ ও আলু মজুত করে বেশি দামে বিক্রি করছেন এমন অভিযোগ পেয়ে যাত্রাবাড়ীর পেঁয়াজের আড়তে অভিযান চালানো হয়। তিনি বলেন, আমরা আড়তে প্রবেশ করার পর ৬৫ টাকা কেজির পেঁয়াজ ৪০ টাকা হয়ে যায়। আলুর আড়তে পাল্লা বিক্রি হচ্ছিল ১১০ টাকা। র‍্যাব  ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে হয়ে গেছে ৭০ টাকা। আড়তগুলোতে অভিযান চলছে। অভিযান শেষে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

সারোয়ার আলম আরো বলেন, দেখা গেছে পাইকারি বাজারে গত বুধ ও বৃহস্পতিবার (১৮ ও ১৯ মার্চ) প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ছিল ২৮ থেকে ৩১ টাকা। গতকাল তারা পেঁয়াজ বিক্রি করেছে ৬৫ থেকে ৬৮ টাকা কেজি। খুচরা বাজারে ৮০ থেকে ৮৫ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি করেছে। অথচ এটা পেঁয়াজের সিজন। দেশে প্রচুর মজুত রয়েছে। ব্যবসায়ী, আড়তদার ও ফড়িয়ারা মিলে এই কাজগুলো করেছেন। এ পর্যন্ত ১৪টি প্রতিষ্ঠানকে ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে পাঁচজনকে ৬ মাস থেকে ১ বছরের কারাদণ্ড দওয়া হয়েছে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, করোনা পরিস্থিতির সুযোগে বা মানুষের অতিরিক্ত কেনাকাটার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে যাবা দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করবে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি একইসঙ্গে ২-৩ মাসের বাজার না করার জন্য ক্রেতাদের অনুরোধ করেন। একসঙ্গে সর্বোচ্চ সাত দিনের বাজার করার পরামর্শ দেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ